1. riajul.kst1@gmail.com : riajul :
  2. riajul.kst@gmail.com : riajul.kst@gmail.com :
শুক্রবার, ০৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০৫:৩২ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
কুষ্টিয়া সদর হাসপাতালে জীবিত রোগীকে মৃত ঘোষণার অভিযোগ ভেড়ামারায় স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে অপারেশন বন্ধ, অর্থ লুটে নিচ্ছেন অসাধু ব্যবসায়ীরা খুলনা বিভাগীয় সাংবাদিক ফোরামের সভাপতি শেখ নজরুল ইসলাম ও সাধারণ সম্পাদক রিজভী নেওয়াজ কাগজ সংকটের কারণে কুষ্টিয়া থেকে প্রকাশিত পত্রিকা ছাপা বন্ধ কুষ্টিয়ায় আলোচিত কর্নেল হত্যায় তিন বন্ধুকে যাবজ্জীবন ‘পাঠান’ অনলাইনে ফাঁস মিরপুর হাসপাতালের বেহাল দশা, সিভিল সার্জনকে আইনি নোটিশ কুমারখালীতে তিন ব্যবসায়ীকে ৩৫ হাজার জরিমানা সরকারি কলেজে সেবা না পেয়ে ভেড়ামারায় ছাত্রলীগের মানববন্ধন কুষ্টিয়ায় ৪৭ বিজিবি’র ১২ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উদযাপন

অস্ট্রেলিয়া কোটি ডলার দিচ্ছে ক্ষতিগ্রস্ত রোহিঙ্গাদের জন্য

Reporter Name
  • আপডেট টাইম : বৃহস্পতিবার, ২৫ মার্চ, ২০২১
  • ২৯৯ বার নিউজটি পড়া হয়েছে

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : আগুনে ক্ষতিগ্রস্ত রোহিঙ্গাদের জন্য জরুরি সহায়তা হিসাবে ১ কোটি অস্ট্রেলীয় ডলার দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছে অস্ট্রেলিয়া সরকার।
বৃহস্পতিবার এক বিবৃতিতে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় শোক প্রকাশ করে এ সহায়তার ঘোষণা দেন দেশটির পররাষ্ট্রমন্ত্রী মেরিস পেইন।
তিনি বলেন, “কক্সবাজারে রোহিঙ্গা এবং স্থানীয় গোষ্ঠীর জন্য মানবিক সহায়তা বজায় রাখতে অস্ট্রেলিয়া প্রতিশ্রুতিবদ্ধ।
”এই বিধ্বংসী ঘটনার আলোকে, আমি আজ আগুনে ক্ষতিগ্রস্তদের জন্য আমাদের বিদ্যমান মানবিক সহায়তার অতিরিক্ত ১০ মিলিয়ন অস্ট্রেলিয়ান ডলার জরুরি সহায়তা ঘোষণা করছি।”
গত সোমবার বিকালে উখিয়ার বালুখালীর ৮-ডব্লিউ ক্যাম্পে আগুন লাগে। পরে পাশের ৯, ১০ ও ১১ নম্বর ক্যাম্পেও আগুন ছড়িয়ে পড়ে। সরকারি হিসাবে, এ ঘটনায় ১১ জনের মৃত্যু হয়েছে। তবে জাতিসংঘ শরণার্থী সংস্থা ১৫ জনের তথ্য দিয়েছে।
এ অগ্নিকাণ্ডে রোহিঙ্গাদের ৯ হাজার ৩০০ বসত ঘর এবং আনুমানিক ৪৫ হাজার মানুষ ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। এছাড়া ঘটনায় স্থানীয় বাসিন্দাদের দুই শতাধিক বসত বাড়ি ও স্থাপনাও ক্ষতিগ্রস্ত হয়।
অগ্নিকাণ্ডের তিনদিন পর বিবৃতিতে প্রিয়জন হারাদের প্রতি সমবেদনা জানিয়ে অস্ট্রেলিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, “এই অগ্নিকাণ্ডের প্রভাবে ১২০,০০০ এরও বেশি মানুষ, খাদ্য বিতরণ কেন্দ্র, স্বাস্থ্যকেন্দ্র এবং অন্যান্য সুযোগ-সুবিধাগুলো ব্যপকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে যা অস্ট্রেলিয়া এবং আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের জন্য গভীর উদ্বেগের বিষয়।”
তিনি বলেন, অতিরিক্ত এই সহায়তা জাতিসংঘের শরণার্থী সংস্থা ইউএনএইচসিআর, আন্তর্জাতিক অভিবাসন সংস্থা (আইওএম), বিশ্ব খাদ্য কর্মসূচি (ডাব্লিউএফপি) এবং জাতিসংঘের জনসংখ্যা তহবিলের (ইউএনএফপিএ) মাধ্যমে খরচ হবে।
২০১৭ সাল থেকে বাংলাদেশে রোহিঙ্গা শরণার্থীদের সঙ্গে ২৬০ মিলিয়ন এরও বেশি অস্ট্রেলিয়ান ডলার বরাদ্দকৃত তহবিল এর সাথে সংযুক্ত হচ্ছে যা এবং স্থানীয় গোষ্ঠীর জন্য মানবিক সহায়তা হিসেবে প্রদান করা হচ্ছে।

নিউজটি শেয়ার করুন..

এ জাতীয় আরো খবর ....

All rights reserved © 2020 tajasangbad.com
Design & Developed BY Anamul Rasel
x