1. riajul.kst1@gmail.com : riajul :
  2. riajul.kst@gmail.com : riajul.kst@gmail.com :
শুক্রবার, ১২ অগাস্ট ২০২২, ১১:২১ অপরাহ্ন

সুদানে বিক্ষোভে সেনাবাহিনীর গুলিতে, নিহত অন্তত ১৫

Reporter Name
  • আপডেট টাইম : বৃহস্পতিবার, ১৮ নভেম্বর, ২০২১
  • ১৪৫ বার নিউজটি পড়া হয়েছে

অনলাইন ডেস্ক : উত্তর আফ্রিকার দেশ সুদানে সামরিক অভ্যুত্থানবিরোধী বিক্ষোভে সেনাবাহিনীর গুলিতে কমপক্ষে ১৫ জন নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন আরও বহু বিক্ষোভকারী। সামরিক অভ্যুত্থানের বিরুদ্ধে বুধবার (১৭ নভেম্বর) কয়েক হাজার বিক্ষোভকারী রাস্তায় নামলে হতাহতের এই ঘটনা ঘটে। সুদানের চিকিৎসকদের বরাত দিয়ে বৃহস্পতিবার (১৮ নভেম্বর) এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে বার্তাসংস্থা রয়টার্স ও সংবাদমাধ্যম আলজাজিরা। সামরিক অভ্যুত্থানের মাধ্যমে ক্ষমতা দখলের পর থেকে গত প্রায় এক মাসে বুধবারই ছিল সবচেয়ে রক্তক্ষয়ী দিন। রয়টার্স জানিয়েছে, গত ২৫ অক্টোবর সামরিক অভ্যুত্থানের মাধ্যমে ক্ষমতা দখলের প্রতিবাদে বুধবার সুদানের রাজধানী খার্তুমে বিক্ষোভে অংশ নেন হাজার হাজার মানুষ। রাজধানী ছাড়াও বাহরি ও ওমদুরমান শহরেও একইদিন বিক্ষোভে নামেন সাধারণ মানুষ। তারা বেসামরিক কর্তৃপক্ষের হাতে ক্ষমতা হস্তান্তরের দাবিতে বিক্ষোভ করতে থাকেন। একইসঙ্গে ২৫ অক্টোবরের অভ্যুত্থানে জড়িতদের বিচারের দাবিও জানান তারা। প্রত্যক্ষদর্শীদের বরাত দিয়ে রয়টার্স বলছে, বুধবার ওই বিক্ষোভে অংশ নেওয়া মানুষকে ছত্রভঙ্গ করতে সরাসরি তাজা গুলি ও টিয়ার গ্যাস নিক্ষেপ করে নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যরা। রাজধানী খার্তুমসহ তিনটি শহরেই এই বিক্ষোভে গুলি চালানো হয়। একইসঙ্গে এই শহরগুলোতে মোবাইল ফোন সেবাও বন্ধ করে দেওয়া হয়।

সুদানের রাষ্ট্রীয় টেলিভিশনে বলা হয়েছে, বুধবারের ঘটনায় বিক্ষোভকারী ও পুলিশ উভয়পক্ষেই অনেকে আহত হয়েছেন। আফ্রিকার এই দেশটির চিকিৎসকদের সংগঠন সেন্ট্রাল কমিটি অব সুদানিজ ডক্টরস জানিয়েছে, অভ্যুত্থানবিরোধী বিক্ষোভ ছত্রভঙ্গ করতে রাজধানী খার্তুমের বিভিন্ন অংশে ব্যাপক গুলিবর্ষণ করেছে সামরিক সরকারের নিরাপত্তা বাহিনী। এতে হাজারও মানুষ গুলিবিদ্ধ হয়ে আহত হয়েছেন। আহতদের মধ্যে কয়েকজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক। চিকিৎসকদের এই সংগঠনটি সুদানের গণতন্ত্রপন্থি মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছে। তারা বলছে, বুধবার নিরাপত্তা বাহিনীর গুলিতে নিহত বিক্ষোভকারীদের সবাই বাহরি শহরের। রয়টার্সের এক প্রত্যক্ষ্যদর্শী বলছেন, বিক্ষোভের সময় মানুষজন রাস্তায় ব্যারিকেড দিয়ে বাধা সৃষ্টি করে। ফলে রাস্তাগুলো যাবাহন শূন্য হয়ে যায়। ওমডারমান শহর থেকে একজন জানান, মানুষ এখন খুব ভীত ও সন্ত্রস্ত অবস্থায় আছে।

গত ২৫ অক্টোবর অভ্যুত্থান ঘটিয়ে ক্ষমতা দখলে নেওয়ার পর দেশটির প্রধানমন্ত্রী আব্দাল্লাহ হামদককে আটক করে সুদানের সেনাবাহিনী। সুদানের সামরিক বাহিনীর প্রধান জেনারেল আবদেল ফাত্তাহ আল-বুরহানের এই ক্ষমতা দখলের বিরুদ্ধে হাজার হাজার নাগরিক প্রতিদিন বিক্ষোভ করছেন। অভ্যুত্থানবিরোধী বিক্ষোভকারীদের দমনে নিরাপত্তা বাহিনীর সহিংসতায় এখন পর্যন্ত বহু প্রাণহানি এবং বেশ কয়েকজন গণতন্ত্রকামীকে আটক করা হয়েছে। পশ্চিমা বিশ্ব ও আন্তর্জাতিক বিভিন্ন সংস্থা সুদানে অভ্যুত্থানের নিন্দা জানিয়ে অবিলম্বে বেসামরিক সরকারের হাতে ক্ষমতা হস্তান্তরের আহ্বান জানিয়েছে। যুক্তরাষ্ট্র, জাতিসংঘসহ পশ্চিমা বিশ্বের বিভিন্ন দেশ এবং সংস্থা সুদানে সামরিক অভ্যুত্থানের নিন্দা জানিয়েছে। একইসঙ্গে আটক নেতাদের দ্রুত মুক্তির আহ্বান এবং ভঙ্গুর প্রায় দেশটিতে অর্থনৈতিক সহায়তা বন্ধের হুমকি দিয়েছে তারা। অভ্যুত্থানের পরপরই যুক্তরাষ্ট্র তাৎক্ষণিকভাবে ৭০০ মিলিয়ন ডলারের অর্থনৈতিক সহায়তা বন্ধ করে দিয়েছে।

নিউজটি শেয়ার করুন..

এ জাতীয় আরো খবর ....

All rights reserved © 2020 tajasangbad.com
Design & Developed BY Anamul Rasel
x