1. riajul.kst1@gmail.com : riajul :
  2. riajul.kst@gmail.com : riajul.kst@gmail.com :
সোমবার, ১৫ অগাস্ট ২০২২, ০৩:৩৫ পূর্বাহ্ন

কুষ্টিয়ায় পৃথক পৃথক ড্রাম ট্রাকের ধাক্কায় ৬ জন নিহত

Reporter Name
  • আপডেট টাইম : সোমবার, ১০ জানুয়ারী, ২০২২
  • ২০৫ বার নিউজটি পড়া হয়েছে

কুষ্টিয়া প্রতিনিধি : কুষ্টিয়া সদর উপজেলায় ট্রাকের ধাক্কায় ভ্যানচালকসহ চারজন নিহত হয়েছেন। সোমবার (১০ জানুয়ারি) ভোর সাড়ে ৬টার দিকে উপজেলার বটতৈল দক্ষিণপাড়া এলাকায় মন্ডল হোটেলের সামনে কুষ্টিয়া-ঝিনাইদহ মহাসড়কে এ দুর্ঘটনা ঘটে।
নিহত চারজনের মধ্যে একজন পুরুষ এবং তিনজন নারী বলে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন কুষ্টিয়া হাইওয়ে পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ইদ্রিস আলী। নিহতরা হলেন- সদর উপজেলার স্বস্তিপুর এলাকার হজেল হোসেনের ছেলে ভ্যানচালক মুক্তার হোসেন (৫০), একই এলাকার আজিজুল হকের স্ত্রী জেসমিন (৩০), আলামপুর হালদারপাড়া এলাকার ভাদু মোল্লার মেয়ে রোজিনা খাতুন (২৭) এবং হালদারপাড়ার মনোরঞ্জনের স্ত্রী স্বপ্না রানী (৪৫)। এ ঘটনায় আহত হয়ে কুষ্টিয়া সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন আলামপুর ইউনিয়নের বালিয়াপাড়া গ্রামের শরিফুলের স্ত্রী তহমিনা খাতুন।
পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, সোমবার ভোর সাড়ে ৬টার দিকে কুষ্টিয়া সদর উপজেলার বটতৈল দক্ষিণপাড়া এলাকায় মন্ডল হোটেলের সামনে কুষ্টিয়া-ঝিনাইদহ সড়কে ঝিনাইদহগামী দ্রæতগতির একটি ট্রাক বিপরীতগামী একটি যাত্রীবাহী ভ্যানকে ধাক্কা দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই চারজনের মৃত্যু হয়। খবর পেয়ে হাইওয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে লাশ চারটি উদ্ধার করে কুষ্টিয়া ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালের মর্গে নিয়ে গেছে।
কুষ্টিয়া হাইওয়ে পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ইদ্রিস আলী জানান, কুষ্টিয়া থেকে ছেড়ে আসা ঝিনাইদহগামী দ্রæতগতির একটি ট্রাক যাত্রীবাহী ভ্যানকে ধাক্কা দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই চারজন নিহত হন। পরে মরদেহ চারটি উদ্ধার করে মর্গে পাঠানো হয়। ট্রাকটিকে জব্দ করা হলেও চালক পালিয়ে গেছে।
এ দিকে, কুষ্টিয়ার দৌলতপুর উপজেলায় ড্রাম ট্রাকের ধাক্কায় দুই মোটরসাইকেল আরোহীর মৃত্যু হয়েছে। গতকাল রোববার (৯ জানুয়ারি) রাত সাড়ে ৯টার দিকে উপজেলার তারাগুনিয়া এলাকায় তারাগুনিয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়-সংলগ্ন ফারুক চেয়ারম্যানের বাড়ির সামনে এ দুর্ঘটনা ঘটে। এলাকাবাসীরা ক্ষুদ্ধ হয়ে ড্রাম ট্রাকটির গায়ে আগুন ধরিয়ে দেয় এবং ফায়ার সার্ভিসের গাড়ী বেশকিছুক্ষণ আটকিয়ে রাখে।
নিহত দুজন একই মোটরসাইকেলের যাত্রী। তারা হলেন দৌলতপুর উপজেলার কৈপালে গ্রামের মৃত হযরত আলীর ছেলে বিদ্যুৎ (৩৭) ও একই এলাকার মৃত ফেরুর ছেলে রাজন (৩৬)। এসব বিষয় নিশ্চিত করেছেন দৌলতপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এস এম জাবীদ হাসান।
পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, রোববার রাত সাড়ে ৯টার দিকে দৌলতপুর উপজেলার তারাগুনিয়া এলাকায় তারাগুনিয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়-সংলগ্ন ফারুক চেয়ারম্যানের বাড়ির সামনে ভেড়ামারাগামী দ্রæতগতির একটি ড্রাম ট্রাক নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে মোটরসাইকেল ও পাখী ভ্যানকে সামনে থেকে ধাক্কা দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই দুই মোটরসাইকেল আরোহী নিহত হন এবং এতে ভ্যানের কয়েকজন যাত্রী গুরুতর আহত হয়েছেন। তাদের উদ্ধার করে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
খবর পেয়ে দৌলতপুর থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে মরদেহ দুটি উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করেন।
এদিকে স্থানীয়রা ট্রাকটি আটক করে আগুন ধরিয়ে দিয়েছে। ফায়ার সার্ভিসের গাড়ী আটক রাখে ক্ষুদ্ধ এলাকাবাসীরা। পরে পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করে।
দৌলতপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এস এম জাবীদ হাসান জানান, দুই মোটরসাইকেল আরোহীর নিহত হওয়ায় ট্রাকটি আটক করেছে পুলিশ। তবে ঘটনাস্থল থেকে কৌশলে চালক পালিয়েছেন। ট্রাক চালককে ধরতে অভিযান পরিচালনা করা হচ্ছে বলে তিনি জানান।

নিউজটি শেয়ার করুন..

এ জাতীয় আরো খবর ....

All rights reserved © 2020 tajasangbad.com
Design & Developed BY Anamul Rasel
x