1. raselahamed29@gmail.com : admin :
  2. riajul.kst@gmail.com : riajul.kst :
বুধবার, ২৮ জুলাই ২০২১, ০৯:৫৬ পূর্বাহ্ন

চলমান পরিস্থিতিতে পোশাকখাতের কোনো অর্ডার বাতিল করবে না নেদারল্যান্ডস

Reporter Name
  • আপডেট টাইম : বৃহস্পতিবার, ৩০ এপ্রিল, ২০২০
  • ৮৬ বার নিউজটি পড়া হয়েছে

ঢাকা অফিস
চলমান পরিস্থিতিতে নেদারল্যান্ডসের ক্রেতারা বাংলাদেশের তৈরি পোশাক শিল্পখাতের কোনো ক্রয়াদেশ বাতিল করবে না বলে নেদারল্যান্ডসের মন্ত্রী সিগরিদ কাগ টেলিফোন বার্তায় পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেনকে আশ্বস্ত করেছেন। দুইমন্ত্রীর মধ্যে আধঘণ্টা টেলিফোন আলাপ হয়েছে উল্লেখ করে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে বৃহস্পতিবার (৩০ এপ্রিল) এক বার্তায় এ তথ্য জানানো হয়।
বার্তায় বলা হয়, নেদারল্যান্ডসের বৈদেশিক বাণিজ্য এবং উন্নয়নমন্ত্রী সিগরিদ কাগ পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেনকে টেলিফোন করে করোনাভাইরাস মোকাবিলায় করণীয় সম্পর্কে আলাপ করেন।
ফোনালাপে তৈরি পোশাখাতের ৩ দশমিক ১৮ বিলিয়ন ডলার মূল্যের ক্রয়াদেশ বাতিলের তথ্য উল্লেখ করে পররাষ্ট্রমন্ত্রী নেদারল্যান্ডের মন্ত্রীকে বলেন, ‘এ সময়ে উন্নত দেশগুলোর ক্রয়াদেশ বাতিল মানে দুর্যোগের ওপর দুর্যোগ। এ ঘটনায় বাংলাদেশের তৈরি পোশাক শিল্প ধ্বংস হওয়ার পথে। এরই মধ্যে ১১৫০টি পোশাক কারখানায় ক্রয়াদেশ বাতিলের ঘটনা নেতিবাচক প্রভাব ফেলেছে, যার ফলে ২ দশমিক ২৮ মিলিয়র পোশাককর্মীর এখন চাকরি হারানোর ঝুঁকি সৃষ্টি হয়েছে। তাই নেদারল্যান্ডসের পোশাক ক্রেতাদের প্রতি অনুরোধ যেন তারা এ সময়ে যেন তাদের ক্রয়াদেশগুলো বাতিল না করে।
পররাষ্ট্রমন্ত্রীর অনুরোধের পরিপ্রেক্ষিতে নেদারল্যান্ডসের মন্ত্রী সিগরিদ কাগ আশ্বস্ত করে বলেন, ‘নেদারল্যান্ডসের ক্রেতারা বাংলাদেশের তৈরি পোশাকখাতের ক্রয়াদেশ বাতিল বা স্থগিত করবে না। বিশ্বব্যাপী পোশাক শিল্পের সরবরাহ যোগান নিশ্চিত করতে নেদারল্যান্ডসের সরকার কাজ করে যাচ্ছে।’
নেদারল্যান্ডসের মন্ত্রী পররাষ্ট্রমন্ত্রীকে জানান, বিশ্ব্যবাপী কোভিড-১৯ মোকাবিলায় নেদারল্যান্ডস সরকার ক্ষতিগ্রস্ত দেশগুলোর জন্য ১০০ মিলিয়ন ইউরোর একটি তহবিল গঠন করেছে। ক্ষতিগ্রস্ত দেশগুলো আবেদন করলে এ তহবিল থেকে সহায়তা পাবে।
টেলিফোন আলাপে দুইমন্ত্রী রোহিঙ্গা ইস্যু নিয়েও আলোচনা করেন। পররাষ্ট্রমন্ত্রী নেদারল্যান্ডসের মন্ত্রীকে জানান যে, বাংলাদেশের সমুদ্রসীমার কাছে প্রায় ৫০০ রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীর সদস্যকে নিয়ে একটি নৌকা অবস্থান করছে। কিন্তু আন্তর্জাতিক সমুদ্র আইন অনুসারে ওই জলসীমার অন্তর্ভুক্ত সবগুলো রাষ্ট্রেরই উচিত মানবিক কারণে ভুক্তভোগীদের সহায়তায় এগিয়ে আসা। কিন্তু সবগুলো দেশই বারবার প্রতিবার এই ইস্যুটি বাংলাদেশের দিকেই ঠেলে দিচ্ছে, অন্য রাষ্ট্রগুলোর কেউ এগিয়ে আসছে না।
রোহিঙ্গা ইস্যুতে পররাষ্ট্রমন্ত্রীর পর্যবেক্ষণের সঙ্গে একমত পোষণ করে নেদারল্যান্ডসের মন্ত্রী বলেন, ‘এটি ঠিক যে, রোহিঙ্গা সংকটের একটা স্থায়ী সমাধান হওয়া প্রয়োজন। কেননা প্রতিবারই বাংলাদেশ বাস্তুচ্যুত রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দেওয়া মানে হচ্ছে মিয়ানমার রোহিঙ্গাদের বাস্তুচ্যুত করতে উৎসাহ পাচ্ছে। রোহিঙ্গা নির্যাতনের বিরুদ্ধে জবাবদিহিতা এবং বিচার নিশ্চিত করতে বাংলাদেশের পক্ষে নেদারল্যান্ডসের সমর্থন অব্যাহত থাকবে।’

নিউজটি শেয়ার করুন..

এ জাতীয় আরো খবর ....

All rights reserved © 2020 tajasangbad.com
Design & Developed BY Anamul Rasel