1. raselahamed29@gmail.com : admin :
  2. riajul.kst@gmail.com : riajul.kst :
বৃহস্পতিবার, ১৩ মে ২০২১, ১২:২৬ অপরাহ্ন

শেরপুরের নাকুগাঁও স্থলবন্দরে করোনায় কমেছে রাজস্ব আয়

Reporter Name
  • আপডেট টাইম : বৃহস্পতিবার, ১৩ আগস্ট, ২০২০
  • ১৩৬ বার নিউজটি পড়া হয়েছে

শেরপুর প্রতিনিধিঃ- শেরপুরের নালিতাবাড়ী নাকুগাঁও স্থলবন্দরে রাজস্ব আয় কমেছে। করোনা ভাইরাসের প্রভাবে এ পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে। করোনা ভাইরাসের কারনে এ স্থলবন্দরে দীর্ঘদিন আমদানী-রপ্তানী বন্ধ ছিল। অবশেষে স্বল্প পরিসরে আমদানী-রফতানী কার্যক্রম শুরু হয়েছে। দীর্ঘদিন এ কার্যক্রম বন্ধ থাকায় রাজস্ব কমেছে। বেকার হয়ে মানবেতর জীবন যাপন করছেন শ্রমিকরা। নাকুগাঁও স্থলবন্দরের কাস্টমস ইন্সপেক্টর সঞ্জয় সরকার জানান, করোনা ভাইরাসের কারনে ১৯ মার্চ থেকে ৩০ মে পর্যন্ত বন্দরের কার্যক্রম বন্ধ ছিল। পরে সরকারী নির্দেশনায় জুন থেকে কার্যক্রম শুরু হলেও এখনও স্বল্প পরিসরে চলছে আমদানী রফতানী কার্যক্রম। তিনি আরও জানান ২০১৯-২০২০ অর্থবছরে এ স্থলবন্দর দিয়ে ৪৮ হাজার ৬৮৫ মেট্রিক টন পাথর ৯৯ মেট্রিক টন কয়লা ও ১২ মেট্রিক টন আদা আমদানী করা হয়েছে। এসব পণ্য আমদানী করা থেকে রাজস্ব আয় ও গবাদী পশু নিলামে বিক্রি বাবদ জমা হওয়া ২ লাখ ৮৯ হাজার টাকাসহ সরকারের রাজস্ব আয় হয়েছে ১ কোটি ৯৬ লাখ ৭ হাজার টাকা। এছাড়া বন্দর দিয়ে ভারতে রফতানী করা হয়েছে ২৮০ মেট্রিক টন ক্রাউন সিমেন্ট ও ১৬৮ মেট্রিক টন পারটেক্সের বোর্ড। আমাদানী রফতানীকারক সমিতির সদস্য ব্যবসায়ী আক্তার হোসেন বলেন, এখন স্বাস্থ্যবিধি মেনে অল্প পরিমানে ভারত থেকে পাথর আমদানী শুরু হয়েছে। করোনা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে এলে পুরোদমে ব্যবসা শুরু হবে। তিনি আরো জানান, শুরু দিকে এই বন্দর দিয়ে কয়লা আমদানী করা হতো। বিশেষ কারনে তা বন্ধ থাকায় করোনার আগে আবারও পাথরের পাশাপাশি কয়লা আমদানীর প্রক্রিয়াও চলছিল। পাথরের সাথে যদি কয়লাও আমদানী করা যেত তাহলে ব্যবসায়ীরা আরও বেশী লাভবান হতো। রাষ্ট্রীয় কোষাগারে আসতো বিপুল পরিমানে রাজস্ব। এ ব্যাপারে জানতে চাইলে নাকুগাঁও স্থলবন্দরের প্রশাসনিক কর্মকর্তা মো. একরামুল হক বলেন, করোনা ভাইরাসের কারনে বন্দরের আমদানী-রফতানী কার্যক্রম প্রায় তিন মাসের মতো বন্ধ ছিল। যে কারনে রাজস্ব আয় কমে গেছে অনেকটাই। ব্যাবসায়ীরা পাথর আমদানী করতে পারেনি। যদি করোনার প্রভাব না পড়তো তাহলে কমপক্ষে আরো ৬০ লাখ টাকা রাজস্ব আয় বাড়তো। পাশাপাশি কয়লা আমদানীর বিষয়টি প্রক্রিয়াধীন রয়েছে বলে জানান।

নিউজটি শেয়ার করুন..

এ জাতীয় আরো খবর ....

All rights reserved © 2020 tajasangbad.com
Design & Developed BY Anamul Rasel