1. raselahamed29@gmail.com : admin :
  2. riajul.kst@gmail.com : riajul.kst :
মঙ্গলবার, ১৩ এপ্রিল ২০২১, ০৫:২৮ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
কুষ্টিয়ার খলিশাকুন্ডিতে নাম্বার বিহীন ট্রলির ধাক্কায় মোটর সাইকেলের চালক নিহত কুষ্টিয়ায় মাটিতেই মৃত্যু হল আরজিনার করোনায় আক্রান্ত হয়ে সংগীত পরিচালক ফরিদ আহমেদ মারা গেছেন দেশে ২৪ ঘন্টায় ৮৩ জনের মৃত্যু কুষ্টিয়ার জিয়ারখীতে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে দু’পক্ষের সংঘর্ষে আহত ২০, দু’পক্ষের বাড়ী ঘর লুটপাটের অভিযোগ একদিনে ভারতে আক্রান্তের সর্বোচ্চ রেকর্ড ফের ভেঙেছে, মৃত ৯১৪ কুষ্টিয়াসহ সারাদেশে ভারী বৃষ্টিপাত হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে এ মাসে উন্নয়ন কাজ লকডাউনে চলবে: পরিকল্পনামন্ত্রী কুষ্টিয়ায় মাদক বিক্রয়ের টাকা ভাগাভগি নিয়ে সৎ ভাইয়ের হাতে ভাই খুন কুষ্টিয়ার এ্যাড. মিয়া নাজির আর নেই, আইনজীবী সমিতির শোক প্রকাশ

কুষ্টিয়া শহরের কিশোর গাংদের প্রধান এস কে সজিব কত অপরাধ করলে থামবে ?

Reporter Name
  • আপডেট টাইম : রবিবার, ১৫ নভেম্বর, ২০২০
  • ১০৮৮ বার নিউজটি পড়া হয়েছে

আরিফ, কুষ্টিয়া : কুষ্টিয়া আড়ুয়াপাড়ার এক সময়ের কুখ্যাত মাদক ব্যবসায়ী মিলন শেখ ওরফে ডাল মিলনের ছেলে সজিব শেখ। শুধু সজিবের বাবা নয় সজিব এর মা সালমা বেগম ও বোন মিলির নামেও রয়েছে একাদিক মাদক মামলা।
এলাকাবাসী ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায় সজিব এর বড় ভাই ছিলেন এক সময়ের শহর এর প্রভাবশালী মাদক ব্যবসায়ী রাজিব। পরে মাদকের ব্যাবসার টাকা পয়সা ভাগাভাগি নিয়ে সন্ত্রাসীদের হাতে খুন হয় রাজিব। রাজিব মারা যাওয়ার পরে ব্যবসার হাল ধরেন সজিব। কিশোর বয়স থেকেই অনেক মাদক ও অস্ত্র ব্যবসায় অনেক পটু হয়ে ওঠেন সজিব। কয়েকশ বোতল ফেন্সডিল সহ র‍্যাব ১২ এর হাতে সজীব ধরা পরেন। পরে

জেল থেকে বের হয়ে আবারো মেতে উঠেন সজিব মাদক ব্যাবসা ও সন্ত্রাসী কার্যকলাপে কয়েকবার জেলে গেলেও থেমে যাননি সজিব। পরে ২০১৭ সালের জেলা ছাত্রলীগ এর এক নেতার হাত ধরে চলে আসেন রাজনীতিতে। ঔ নেতার আস্থাভাজন হওয়ায় জেলা ছাত্রলীগ এর সহ সম্পাদক পদ পেয়ে যান সজিব। সজিব পদ পেয়েই হয়ে ওঠেন আরো বেপোরায়া।

 

মাদক ব্যাবসা সচল রাখার জন্য ছাত্রলীগ এর পদ ব্যাবহার অল্প কিছুদিনের মধ্যই গড়ে তোলেন কুষ্টিয়া শহরে কিশোর গ্যাং। মামলা হলেও খুব সহজেই বের হয়ে আবরো শুরু করেন তার অপতৎপরতা। ২০১৭ থেকে ২০২০ এর মধ্য কয়েকবার জেল খাটেন সজিব। এক পর্যায়ে ক্ষুব্ধ হয়ে ছাত্রলীগ এর সেই প্রভাবশালী নেতার বিতরিত করেন সজিবকে। বেড়েই চলতে থাকে সজিবের সাম্রাজ্য। কুষ্টিয়া শহরের বিএসবি, ব্লাক লিষ্ট, ০০৭, ভাইকিং,ডেভিল সহ আরও নাম না জানা অনেক গ্যাং নিয়ন্ত্রন করেন সজিব। শহর দখল হওয়ার পরে এখন সজিব গ্যাং এর বিস্তার শুরু হয় পুরা কুষ্টিয়া জেলাতে। কুষ্টিয়া জেলার কুমারখালি, খোকসা, মিরপুর, দৌলতপুর সহ সদর উপজেলার সকল ইউনিয়নে কেক কেটে শুরু হয় সজিব গ্যাং এর পদযাত্রা।

যার প্রতিটি ছবিই ভাইরাল ফেসবুকে। গত ১২/১১/২০ তারিখে ফিল্মি ষ্টাইলে বরগুনার রিফার হত্যা থেকে অনুপ্রানিত হয়ে জন সম্মুখে কুষ্টিয়া শহরের প্রান কেন্দ্র এন এস রোডে ছাত্রলীগ কর্মি রিদয়কে হত্যা চেষ্টা করে আবারো আলোচনায় আসেন সজিব।। ঘটনার কয়েকদিন অতিবাহিত হলেও এখনো ধরাছোঁয়ার বাইরে সজিব। এখনো তাকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়নি পুলিশ। সজিবের নামে মাদক অস্ত্র সহ একাধিক মামলার আসামী হলেও কেন তার বিরুদ্ধে ব্যাবস্থা নেয়না পুলিশ? এখানো কেন থামানো যাচ্ছে না সজিব কে? আর কত অপরাধ করলে থামবে সজিব? এটাই এখন সচেতন মহলের প্রশ্ন?

নিউজটি শেয়ার করুন..

এ জাতীয় আরো খবর ....

All rights reserved © 2020 tajasangbad.com
Design & Developed BY Anamul Rasel