1. raselahamed29@gmail.com : admin :
  2. riajul.kst@gmail.com : riajul.kst :
বুধবার, ০৩ মার্চ ২০২১, ০৮:২৮ অপরাহ্ন

কুষ্টিয়ার ৪টি পৌর নির্বাচনে আওয়ামী লীগ ৩টি ১টিতে জাসদ বিজয়ী

Reporter Name
  • আপডেট টাইম : রবিবার, ১৭ জানুয়ারী, ২০২১
  • ৮৭ বার নিউজটি পড়া হয়েছে

রিয়াজুল ইসলাম সেতু, কুষ্টিয়া : কুষ্টিয়ার ৪টি পৌর নির্বাচনে আওয়ামী লীগ ৩টি , ১টিতে জাসদ বিজয়ী হয়েছেন।
কুষ্টিয়া পৌরসভায় আওয়ামীলীগ সমর্থিত আনোয়ার আলী ৫ম বারের মতো বিজয় অর্জন করেছেন। নৌকা প্রতীকে তিনি পেয়েছেন ৬৬ হাজার ৫২ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দী বশিরুল ইসলাম চাঁদ ধানের শীষ প্রতিকে পেয়েছেন ১৪ হাজার ৬শ’ ১৩ ভোট।
কুমারখালী পৌরসভায় পুনরায় মেয়র নির্বাচিত হলেন সামছুজ্জামান অরুন। তিনি আওয়ামীলীগের মনোনিত প্রার্থী হিসেবে নৌকা প্রতীকে ১০ হাজার ১১০ ভোট পেয়ে বে-সরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দী আনিসুর রহমান লালু ধানের শীষ প্রতীকে পেয়েছেন ২ হাজার ৩৮৬ ভোট।
মিরপুর পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র পদে আওয়ামী লীগের নৌকা প্রতিকের প্রার্থী হাজী এনামুল হক জয়ী হয়েছেন। নৌকা প্রতিকে তিনি পেয়েছেন ১০ হাজার ৪শ’ ৬৮ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দী স্বতন্ত্র প্রার্থী শেখ আরিফ মোবাইল প্রতিকে পেয়েছেন ২ হাজার ৫শ’ ১৫ ভোট।
ভেড়ামারা পৌরসভা নির্বাচনে আওয়ামীলীগ সমর্থিত প্রার্থীকে পরাজিত করে মেয়র নির্বাচিত হয়েছেন জাতীয় সমাজতন্ত্রিক দল জাসদ (ইনু) সমর্থিত প্রার্থী আনোয়ারুল কবীর টুটুল। তিনি পেয়েছেন ৮ হাজার ৩২ ভোট। তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী আওয়ামীলীগ সমর্থিত, বর্তমান মেয়র আলহাজ্ব শামিমুল ইসলাম ছানা পেয়েছেন ৫ হাজার ৬’শ ৩৪ ভোট। ২ হাজার ৩’শ ৯৮ ভোটে আনোয়ারুল কবীর টুটুল বেসরকারী ভাবে মেয়র নির্বাচিত হন।
কুমারখালী পৌরসভা নির্বাচনে নৌকা প্রতীক ১০ ১১০ ধানের শীষ প্রতীক ২,৩৮৬ ভোট । ৭,৭২৪ ভোটের ব্যবধানে সামছুজ্জামান অরুন পুনরায় মেয়র নির্বাচিত।
কুষ্টিয়ার কুমারখালী পৌরসভায় পুনরায় মেয়র নির্বাচিত হলেন সামছুজ্জামান অরুন।তিনি আওয়ামীলীগের মনোনিত প্রার্থী হিসেবে নৌকা প্রতীকে ১০ হাজার ১১০ ভোট পেয়ে বে-সরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দী আনিসুর রহমান লালু ধানের শীষ প্রতীকে পেয়েছেন ২ হাজার ৮৬ ভোট।
সন্ধায় উপজেলা পরিষদের সম্মেলন কক্ষে ফলাফল ঘোষণার মাধ্যমে এতথ্য নিশ্চিত করেন জেলার অতিরিক্ত নির্বাচন অফিসার ও কুমারখালী পৌরসভা নির্বাচনের রিটার্নিং অফিসার মুহাম্মদ আবু আনছার।
এসময় উপস্থিত ছিলেন সহকারি রিটার্নিং কর্মকর্তা শিরিনা আক্তার বানু। কনকনে শীত উপেক্ষা করে কঠোর নিরাপত্তার মধ্যদিয়ে পৌরসভার ৯ টি ওয়ার্ডের ৫৮ টি বুথে সকাল ৮ টায় ভোট গ্রহন শুরু হয়ে বিরতিহীনভাবে চলে বিকেল ৪ টা পর্যন্ত।
পৌরসভায় মোট ভোটার সংখ্যা ছিল ১৮ হাজার ৯৯০ জন। পুরুষ ভাটার ৯৩১০ এবং মহিলা ভোটার ৯৬৮০ জন। তবে ১২ হাজার ১৯৬ জন ভোটাধিকার প্রয়োগ করে।
সংরক্ষিত মহিলা ১,২,৩ ওয়ার্ডে তানিয়া খাতুন ১৬৮৩ ভোট পেয়ে জবা ফুল প্রতীকে( নতুন মুখ) নির্বাচিত হয়েছে। নিকটতম প্রতিদ্ধন্দী মোছাঃ ডালিয়া খাতুন চশমা প্রতীকে ১৪৮৮ পেয়ে প্রতিদ্ধন্দীতা করে।
সংরক্ষিত মহিলা ৪,৫,৬ ওয়ার্ডে (সাবেক বহাল) মোছাঃ তাহমিনা খাতুন চশমা প্রতীকে ২০৩৪ পেয়ে নির্বাচিত। তাহার নিকটতম প্রতিদ্ধন্দী আনিমা দত্ত আনারস পতীকে পেয়েছে ৮৯৫।
সংরক্ষিত মহিলা ৭,৮,৯ ওয়ার্ডে মোছাঃ ময়না খাতুন (সাবেক বহাল) আনারস প্রতীকে নির্বাচিত হয়েছে ২৭৭৬ ভোট , তাহার নিকটতম মোছাঃ রেখা বেগম জবা ফুল ২২৮২ ভোট পেয়েছে।
অন্যদিকে সাধারন কাউন্সিল পদে ১ নং ওয়ার্ডে(নতুন মুখ) এস এম শাহিনুর রহমান পানির বোতল প্রতীকে ৫৩২ ভোট পেয়ে নির্বাচিত। তার নিকটতম প্রতিদ্ধন্দী আনিসুর রহমান উটপাখি পেয়েছে ৪৯০।
সাধারন কাউন্সিল পদে ২নং ওয়ার্ডে মাহবুবুল আলম বাবু পাঞ্জাবী প্রতীকে ৫৬৮ভোট পেয়ে নির্বাচিত। তার নিকটতম প্রতিদ্ধন্দী তুহিন হোসেন ৩১৭ ভোট উটপাখি পেয়েছে।
৩ নং ওয়ার্ডে বিনা প্রদ্ধিন্দীতায় হারুন অর রশিদ হারুন নির্বাচিত।
৪ নং ওয়ার্ডে ফরিদ ইকবাল খান উটপাখি প্রতীকে ৭০৫ ভোট পেয়ে নির্বাচিত। তার নিকটতম প্রতিদ্ধন্দী মোঃ হেলাল ডালিম প্রতীকে ২২২ পেয়েছে।
৫ নং ওয়ার্ডে এস এম রফিকুল ইসলাম, পাঞ্জাবী প্রতীকে ৭৯১ ভোট পেয়ে নির্বাচিত। তার নিকটতম প্রতিদ্ধন্দী আব্দুর রহিম পানির বোতল প্রতীকে ৩৪৮ পেয়েছে।
৬ নং ওয়ার্ডে মোঃ জুলফিকার আলী হিরো উটপাখি প্রতীকে ১১৬১ ভোট পেয়ে নির্বাচিত। তার নিকটতম প্রতিদ্ধন্দী মোঃ আব্দুস সালাম পাঞ্জাবী প্রতীকে ১৪৯ পেয়েছে।
৭ নং ওয়ার্ডে আকামুদ্দিন আকাই শেখ টেবিল ল্যাম্প প্রতীকে ৭৬৮ ভোট পেয়ে নির্বাচিত। তার নিকটতম প্রতিদ্ধন্দী মোঃ বাকের আলী উটপাখি প্রতীকে ৫৪৭ ভোট পেয়েছে।
৮ নং ওয়ার্ডে মোঃ তুহিন শেখ পানির বোতল প্রতীকে ১০৪৯ ভোট পেয়ে নির্বাচিত। তার নিকটতম প্রতিদ্ধন্দী জহুরুল ইসলাম বাবু উটপাখি প্রতীকে ৬১০ ভোট পেয়েছে
এবং সর্বশেষ ৯ নং ওয়ার্ডে সাবেক কাউন্সিলর আনিসুর রহমানকে পারজিত করে ৬৫০ ভোটে (নতুন মুখ) মিজানুর রহমান মিলন উটপাখি প্রতীকে বিজয়ী হয়েছে। তার নিকটতম প্রতিদ্ধন্দী মোঃ আনিসুর রহমান আলী ডালিম প্রতীকে ৫৮৬ ভোট পেয়েছে।
বাতিল ভোটের সংখ্যা ৪৩ টি।

নিউজটি শেয়ার করুন..

এ জাতীয় আরো খবর ....

All rights reserved © 2020 tajasangbad.com
Design & Developed BY Anamul Rasel