1. raselahamed29@gmail.com : admin :
  2. riajul.kst@gmail.com : riajul.kst :
মঙ্গলবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১১:৪৯ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
বিএনপি নির্বাচনকে কোন চশমায় দেখবেন আগে মনস্থির করুক কুষ্টিয়ায় হাসানুল হক ইনু চলন্ত লেগুনায় নারী অচেতন ব্যাগ-মোবাইল উধাও গাজীপুরে উঠান খুঁড়তে ১০০ বছরের গুপ্তধন! ঢাকঢোল পিটিয়ে লাল নিশানা উড়িয়ে জমি বুঝিয়ে দিল আদালত লালমনিরহাটে করোনা হেল্প সেন্টারের সংগে ভার্চুয়ালে মিটিং করলেন সাবেক উপমন্ত্রী দুলু কুষ্টিয়া প্রেসক্লাবের মাহবুব-ডাবলু পরিষদের প্যানেল পরিচিতি সভা অনুষ্ঠিত শৈলকুপায় ঐতিহ্যবাহী লাঠিখেলায় জনতার ভিড় কুষ্টিয়ায় মাইক্রো চালক হত্যায় ৬জনের যাবজ্জীবন লালমনিরহাটে করোনায় ক্ষতিগ্রস্থদের মাঝে খাদ্য সহায়তা প্রদান কুষ্টিয়ায় খালের পানিতে পড়ে শিশুর মৃত্যু

ছত্তিশগড়ের দৈনিক মৃত্যুও বাড়েছে, ​অবস্থাও বেসামাল

Reporter Name
  • আপডেট টাইম : মঙ্গলবার, ১৩ এপ্রিল, ২০২১
  • ১২৯ বার নিউজটি পড়া হয়েছে

আন্তজাতিক ডেস্ক : সাদা চাদরে ঢাকা মরদেহ। কিছু রোদের মধ্যে স্ট্রেচার পড়ে রয়েছে মর্গের বাইরে, কিছু রয়েছে মাটিতেই। মর্গে জায়গা না থাকায় করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হওয়া এই মানুষগুলোর দেহ এভাবে বাইরে পড়ে রয়েছে।
আনন্দবাজার পত্রিকা বলছে, এই ছবি ভারতের ছত্তিশগড়ের রাজধানী রায়পুরের সবচেয়ে বড় সরকারি হাসপাতালের। যে ছবি প্রকাশ্যে আসতেই মুহূর্তে ভাইরাল হয় যায়। করোনাভাইরাসের দ্বিতীয় ঢেউয়ে বেশ কয়েকটি রাজ্যের মতো ছত্তিশগড়ের অবস্থাও বেসামাল। সেখানকার পরিস্থিতি কতটা ভয়াবহ, তা বুঝিয়ে দিচ্ছে এই ছবি।
পত্রিকাটির প্রতিবেদনে বলা হয়, ছত্তিশগড়ে গত কয়েকদিন ধরে প্রতিদিন আক্রান্ত হচ্ছেন ১০ হাজারের বেশি মানুষ। দৈনিক মৃত্যুও বাড়েছে।
মহামারির শুরুর পর থেকেই রায়পুরের ভিমরাও অম্বেডকর মেমোরিয়াল হাসপাতালে করোনা রোগীদের চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। কিন্তু সেখানকার স্বাস্থ্যকর্মীরা বলছেন, এই পরিস্থিতি এর আগে কখনো তৈরি হয় নি।
রায়পুরের প্রধান স্বাস্থ্য অফিসার মীরা বাঘেল বলেছেন, ‘একবারে এত মানুষের মৃত্যু হবে তা কেউ ভাবেনি। সাধারণত যা মৃত্যু হয়, তার জন্য প্রয়োজনীয় ফ্রিজ রয়েছে। কিন্তু হঠাৎ মৃত্যু ১০-২০ থেকে বেড়ে ৫০-৬০ ছাড়িয়ে গেছে। এত কম সময়ে এত মরদেহ রাখার ব্যবস্থা করা আমাদের পক্ষে সম্ভব হয় নি।’
শুধু হাসপাতালের বাইরে দেহ পড়ে থাকা নয়, শবদাহ নিয়েও সমস্যা দেখা দিচ্ছে ছত্তিশগড়ের বিভিন্ন শহরে। জানা গেছে, রায়পুর শহরে প্রতিদিন ৫৫টির বেশি মরদেহ দাহ করা হচ্ছে। যার মধ্যে অধিকাংশ করোনা রোগী।
এই সমস্যার মোকাবেলার জন্য সেখানকার রাজ্য সরকারের পক্ষ থেকে শহর এলাকায় দ্রুত বৈদ্যুতিক চুল্লি তৈরির নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। রায়পুর, দুর্গ, বিলাসপুর, কোরবা, ভিলাই, রিসালি-এই শহরের পৌর কমিশনারদের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে যত তাড়াতাড়ি সম্ভব বৈদ্যুতিক চুল্লি তৈরির বিষয়টি দেখভালের জন্য

নিউজটি শেয়ার করুন..

এ জাতীয় আরো খবর ....

All rights reserved © 2020 tajasangbad.com
Design & Developed BY Anamul Rasel